ভারতীয় ভিসা : পোর্ট অব এন্ট্রি কোনটা দেবেন

আপডেট: 02:19:26 11/01/2018



img

নওরিন আক্তার : সড়কপথে ভারত ভ্রমণ করতে চাইলে আপনাকে নির্দিষ্ট প্রবেশপথ ব্যবহার করেই যাওয়া-আসা করতে হবে। সেক্ষেত্রে অনেকেই দ্বিধায় পড়ে যান পোর্ট অব এন্ট্রি নিয়ে। কোন দিক দিয়ে প্রবেশ করলে গন্তব্যে যাওয়া সহজ হবে সেটা জানতে চোখ বুলিয়ে নিন নিচে।
•    যারা কলকাতা যেতে চান, তাদের জন্য সুখবর হচ্ছে যেকোনো পোর্টের ভিসা নিয়েই আপনি এখন প্রবেশ করতে পারবেন এই নগরীতে। বেনাপোল/হরিদাসপুর পোর্টের ভিসা নিয়ে যেমন এদিক দিয়ে প্রবেশ করা যাবে, তেমনি অন্যান্য পোর্টের ভিসা যাদের আছে তারাও প্রবেশ করতে পারবেন এই সীমান্ত ব্যবহার করে। তবে এই প্রবেশপথ ব্যবহার করে প্রবেশ করলে বেরও হতে হবে এই পথ দিয়েই। এটা সব পোর্টের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য।
•    দার্জিলিং যেতে চাইলে বুড়িমারি/চ্যাংড়াবান্ধা পোর্ট দিয়ে ভিসা করান। সহজ হবে আপনার দার্জিলিং ভ্রমণ। 
•    ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের শিলিগুঁড়ির খুব কাছে অবস্থিত ফুলবাড়ি/বাংলাবান্ধা সীমান্ত চেকপোস্ট দিয়ে প্রবেশ করলেও কাছাকাছি পাবেন দার্জিলিং।
•    মেঘালয় ঘুরে আসতে চাইলে তামাবিল/ডাউকি দেবেন পোর্ট অব এন্ট্রি। সিলেট থেকে মাত্র দুই/তিন ঘণ্টার দূরত্বেই পেয়ে যাবেন মেঘের রাজ্য মেঘালয়। ঘুরে আসতে পারেন শিলং, চেরাপুঞ্জি। হাতে সময় থাকলে শিলং থেকে ঘণ্টা কয়েকের জার্নি করে আসাম থেকেও ঘুরে আসা যায়।  
•    ত্রিপুরা অথবা আগরতলা যাওয়ার চিন্তা করলে আখাউড়া/আগরতলা পোর্ট দিন ভিসায়।
•    সোনামসজিদ/মহদিপুর সীমান্ত ব্যবহার করে সহজে যাওয়া যায় মুর্শিদাবাদ ও এর আশেপাশের এলাকা।
•    সড়কপথে নেপাল অথবা ভুটান যেতে চাইলে ট্রানজিট ভিসা নেবেন ফুলবাড়ি/বাংলাবান্ধা অথবা বুড়িমারি/চ্যাংড়াবান্ধা পোর্ট দিয়ে।
সূত্র : বাংলা ট্রিবিউন