ভাঙাড়ির দোকানে গোলাবারুদ বিক্রি করতে গিয়ে বিপত্তি

আপডেট: 01:20:37 12/06/2018



img
img

খুলনা অফিস : খুলনায় ৮০৩ রাউন্ড গুলি ও দুটি টি ম্যাগাজিনসহ বিএম সোহেল রানা (২৯) নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।
সোমবার দুপুরে জেলার ডুমুরিয়া থানা পুলিশ স্থানীয় শঙ্খ সিনেমা হলের পাশ থেকে তাকে আটক করে। সোহেল উপজেলার থুকড়া গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে।
খুলনা জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আনিচুর রহমান জানান, ডুমুরিয়া শঙ্খ সিনেমা হলের কাছে রায়হানের ভাঙাড়ির দোকানে সোহেল রানা এসব গোলাবারুদ বিক্রি করতে গিয়েছিলেন। এ খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহানাজ বেগমের উপস্থিতিতে পুলিশ এলএমজির গুলি ৭৯০ রাউন্ড, চায়না রাইফেলের গুলি ১৩ রাউন্ড, দুটি রাইফেলের ম্যাগাজিন উদ্ধার করে। এ সময় পুলিশ সোহেলকে আটক করে এবং গোলাবারুদ জব্দ করে। এ ব্যাপারে ডুমুরিয়া থানায় মামলা হয়েছে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, (বি সার্কেল) মো. সজীব খান ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন।
গ্রেফতার সোহেল রানার দাবি, কয়েকদিন আগে তারা কয়েক শ্রমিক খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুয়েট) কাজ করতে যান। ওই সময় মাটি খুড়তে গিয়ে তারা এ গুলিগুলো পান। পরে বাড়িতে নিয়ে রেখে দেন। পিতলের হওয়ায় বিক্রি করলে কিছু অর্থ আয় হবে ভেবে তা ভাঙাড়ির দোকানে বিক্রি করতে গিয়েছিলেন। এ বিষয়ে এর বেশি কিছু জানা নেই তার। পুলিশ এ তথ্যের সত্যতা যাচাই করতে কুয়েটে অভিযান চালায়।
অপরদিকে কুয়েট ক্যাম্পাসের পশ্চিম পাশে নবনির্মিত আইটি ট্রেনিং সেন্টারের ভবন নির্মাণে কাজ করার সময় পরিত্যক্ত অবস্থায় একটি গ্রেনেড ও ছয় রাউন্ড রাইফেলের গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।
খানজাহান আলী থানা পুলিশ জানায়, সোমবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে কুয়েট ক্যাম্পাসের পশ্চিম পাশে নবনির্মিত আইটি ট্রেনিং সেন্টারের ভবন নির্মাণ কাজে ড্রেজার দিয়ে মাটি খননের সময় নির্মাণ শ্রমিকরা মাটির নিচে পরিত্যক্ত অবস্থায় সাড়ে সাতশ গ্রাম ওজনের একটি গ্রেনেড ও ছয় রাউন্ড রাইফেলের গুলি দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেন। খানজাহান আলী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. লিয়াকত আলী, এসআই রোকনুজ্জামানসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে সেগুলো জব্দ করেন।
এ ব্যাপারে খানজাহান আলী থানার একটি সাধারণ ডায়রী করা হয়েছে।
খানজাহান আলী থানার ওসি জানান, উদ্ধার করা গ্রেনেড ও গুলি মুক্তিযুদ্ধকালীন নয়, আরো পরের। পরীক্ষা নিরীক্ষা না করে এ মুহূর্তে কিছু বলা যাচ্ছে না।

আরও পড়ুন