বেনাপোলে সচল হলো বাণিজ্য

আপডেট: 03:20:22 09/01/2018



img

স্টাফ রিপোর্টার : একদিন বন্ধ থাকার পর মঙ্গলবার বেলা ১১টায় বেনাপোল-পেট্রাপোল স্থলবন্দর দিয়ে দুই দেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি সচল হয়েছে।
ওপারে পেট্রাপোলে কাস্টমসের ঘুষ বাণিজ্যসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ এনে বেনাপোল-পেট্রাপোল স্থলবন্দর দিয়ে সোমবার সারাদিন দুই দেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ রাখেন সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টরা। কাস্টমসের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত টাকা আদায় ও নানা হয়রানির অভিযোগও আনেন তারা।
এদিকে, একদিন বন্ধ থাকার পর আমদানি-রপ্তানি শুরু হওয়ায় হওয়ায় বেনাপোল বন্দরে কর্মচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। একইসঙ্গে বেনাপোল চেকপোস্ট থেকে বন্দর এলাকায় বেড়েছে যানজট। আমদানি পণ্যবাহী ট্রাকের দীর্ঘ লাইন পড়ে গেছে। এর ফলে ভোগান্তিতে পড়েছেন পথচারীরা।
পেট্রাপোল ক্লিয়ারিং এজেন্ট স্টাফ ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কার্তিক চক্রবর্তী বলেন, ‘পেট্রাপোল কাস্টমস অফিসের কর্মকর্তা কর্মচারীদের নানা হয়রানির প্রতিবাদে সোমবার সকাল থেকে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়। পরে বিকেলে প্রশাসনের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক হলেও কোনো সিদ্ধান্তে আসা যায়নি। রাতে আবার বৈঠক করে সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টদের দাবি মেনে নেওয়ায় আমরা মঙ্গলবার সকাল থেকে আবার আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম সচল করেছি।’
বেনাপোল চেকপোস্ট কাস্টমস কার্গো শাখার রাজস্ব কর্মকর্তা হারুন অর রশিদ জানান, মঙ্গলবার সকালে আমদানি-রপ্তানি শুরু হওয়ায় কর্মচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে দুই দেশের বন্দর এলাকায়।  সংশ্লিষ্টরা দ্রুত পণ্য ছাড়করণের কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন বলে তিনি জানান।
বেনাপোল স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক (ট্রাফিক) আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘একদিন বন্ধ থাকার পর আমদানি-রপ্তানি আবার চালু হওয়ায় যানজট ও পণ্যজট হওয়া স্বাভাবিক। পণ্যজট কমাতে  দ্রুত পণ্য খালাসের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

আরও পড়ুন