চৌগাছা-মহেশপুর সড়কে ডাকাতি

আপডেট: 08:41:44 11/06/2018



img

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি : চৌগাছা-মহেশপুর সড়কে গাছ ফেলে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতরা সড়কের একটি গাছ কেটে ফেলে রেখে ঢাকা থেকে চৌগাছাগামী জে-লাইন পরিবহনের একটি বাস আটকে যাত্রীদের সর্বস্ব ছিনিয়ে নেয়।
রোববার দিনগত রাত ২.১৫ মিনিটে চৌগাছা-মহেশপুর সড়কের বালুর গর্ত এলাকায় ডাকাতির ঘটনাটি ঘটে।
বাসযাত্রী চৌগাছা মৃধাপাড়া মহিলা কলেজের প্রভাষক ও দৈনিক সমাজের কথার চৌগাছা প্রতিনিধি অমেদুল ইসলাম জানান, ঢাকার গাবতলী থেকে জে-লাইন পরিবহনের বাসটি বিকেল পাঁচটায় ছেড়ে আসার কথা ছিল। কিন্তু গাড়িটি ছাড়ে ছয়টায়। সাভারের নবীনগর এসে একঘণ্টা ‘অকারণে’ দেরি করে। ফেরিঘাটে কোনো জ্যাম ছিল না। এরপর ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌঁছে যাত্রী ও ব্যাগ নামানোর অজুহাতে এক/দেড় ঘণ্টা দেরি করে। রাত দুইটা ১৫ মিনিটের সময় মহেশপুর পৌর এলাকা ছেড়ে বালুর গর্ত এলাকায় পৌঁছালে দেখি সামনে একটি পিক-আপ দাঁড়ানো। সড়কের ওপর একটি গাছ কেটে ফেলে রাখা। সেসময় বাসটিতে ১০-১৫ জন যাত্রী ছিলেন। বাসটি ব্যারিকেডে দাঁড়িয়ে পড়লে রুমালে মুখ বেঁধে রাখা তিন ডাকাত বাসের মধ্যে উঠে যাত্রীদের ভয়-ভীতি দেখিয়ে টাকা-পয়সা, মোবাইল ফোন সেট, নতুন কেনা পোষাকাদি, মেয়েদের শরীরে থাকা স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নেয়। অন্য একজন বাসের গেটে ছিল।
‘ডাকাতরা আমাকে একটি চাকুর উল্টোপিঠ দিয়ে কয়েকবার আঘাত করে। অন্য যাত্রীদেরও বিভিন্নভাবে ভয়-ভীতি দেখিয়ে লুটপাট করে। তাদের হাতে অনেকগুলো প্যাকেট ছিল। এই প্যাকেটে যাত্রীদের কাছে থাকা নতুন পোশাকাদি ভরে নেয়। এছাড়া চৌগাছা বাজারের একজন কাপড় ব্যবসায়ীর কাপড়ের গাঁটও লুট করে।’
তিনি বলেন, ডাকাতি শুরু হওয়ার ২-৩ মিনিটের মধ্যে বাসের পেছনে একটি ট্রাক আসলে ডাকাতরা সেটি লুট করতে চলে যায়। এর এক-দুই মিনিটের মধ্যে মহেশপুর থানা পুলিশের একটি টহল দল হুইসেল বাজিয়ে সড়কে আসতে থাকলে ডাকাতরা মালামাল নিয়ে সড়কের পশ্চিম দিকের ক্ষেতের মধ্যে দিয়ে পালিয়ে যায়। তাদের একজন কাপড় ব্যবসায়ীর কাপড়ের গাঁটটি মাথায় করে নিয়ে যায়। পরে টহল পুলিশের সহযোগিতায় সড়কের গাছ সরিয়ে বাসটি চৌগাছায় পৌঁছে।
বাসটিতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে (ডিএমপি) কর্মরত দুইজন পুলিশ সদস্যের পরিবার ছিল। এদের একজন তাফসির উদ্দিন জানিয়েছেন, তার স্ত্রী-কন্যা ওই বাসে ছিলেন। ডাকাতরা তার তৃতীয় শ্রেণিপড়ুয়া মেয়েটির গলায় ছুরি ধরে ভয় দেখায়। তিনি বলছেন, তার মেয়েটি এখনো স্বাভাবিক হতে পারছে না।

জানতে চাইলে ঝিনাইদহের মহেশপুর থানার ওসি লস্কর জায়াদুল হক বলেন, ডাকাতি ঠিক হয়নি। ডাকাতির চেষ্টা হয়েছিল। সময়মতো পুলিশ ফোর্স পৌঁছানোয় ডাকাতরা পালিয়ে যায়।

আরও পড়ুন