কীটনাশক পানে দেড় বছরের শিশুর মৃত্যু

আপডেট: 07:50:19 19/04/2017



img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরে কীটনাশক পান করে ফারদিন নামে দেড় বছর বয়সী একটি শিশু মারা গেছে। বুধবার সকাল ১০টা দিকে বাঘারপাড়া উপজেলার জামদিয়া গ্রামের সেলিম রেজার ছেলেটি আমগাছে স্প্রে করার জন্য ঘরে রাখা বিষ খেয়ে ফেলে।
তার দাদা লুৎফর রহমান সুবর্ণভূমিকে জানান, বুধবার সকালে তার এক প্রতিবেশী তাদের বাড়ির আমগাছে কীটনাশক স্প্রে করছিল। এসময় দেড় বছরের ফারদিন না বুঝে ভুল করে কীটনাশক খেয়ে ফেলে। পরিবারের লোকজন টের পেয়ে শিশুটিকে বেলা ১১টার দিকে বাঘারপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেন।
‘‘সেখানকার কর্তব্যরত ডাক্তার বলেন, ‘শিশুটি কীটনাশক পান করেনি। সমস্যা নাই। ওকে বাড়ি নিয়ে যান।’ ডাক্তারের এ কথা শুনে আমরা শিশুটিকে বাড়ি নিয়ে আসি। পরে অবস্থা খারাপ হলে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসি। এখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ফারদিনের মৃত্যু হয়,’’ অভিযোগ করে বলছিলেন লুৎফর।
যশোর জেনারেল হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডের সিনিয়র নার্স শাহিনুর নাহার ডাক্তার মশিউর রহমান দিপুর উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, ‘কীটনাশক পান করা অবস্থায় শিশুটিকে হাসপাতালে আনা হয়েছিল দুপুর পৌনে দুইটার দিকে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেল পৌনে চারটার দিকে সে মারা যায়।’
তবে বাঘারপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্তব্যরত ডাক্তারের বক্তব্য জানা যায়নি।

আরও পড়ুন