কণ্ঠশিল্পী শিরিন সুলতানার মৃত্যু

আপডেট: 01:11:19 20/04/2017



img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরের সুপরিচিত কণ্ঠশিল্পী শিরিন সুলতানা (৫০) মারা গেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। বুধবার সন্ধে সাড়ে ৬টার দিকে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি মারা যান।
তিনি স্বামী, দুই ছেলে ও তিন মেয়ে রেখে গেছেন। তার মরদেহ শহরের শংকরপুরে স্বামী শেখ ফারুক হোসেনের বাড়িতে রয়েছে। বৃহস্পতিবার বাদ জোহর তাকে কারবালা গোরস্থানে দাফন করা হবে।
স্বামী শেখ ফারুক হোসেন ও ছেলে সুজন হোসেন সুবর্ণভূমিকে জানান, শিরিন সুলতানা দীর্ঘদিন ধরে পেটের সমস্যায় ভুগছিলেন। বুধবার দুপুরে তিনি নারকেল-চিংড়ি রান্না করে তা দিয়ে ভাত খান। এর ফলে তার পেটে গ্যাস বাড়ে। সন্ধে সাড়ে ৬টার দিকে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। তখনই তাকে হাসপাতালে নেওয়ার জন্য বাড়ি থেকে রওনা হন পরিবারটির সদস্যরা। কিন্তু পথেই মারা যান শিরিন।
শিরিনের মৃত্যুসংবাদ শুনে তার স্বজন, প্রতিবেশী, শিল্পীসহ বহু মানুষ বাড়িটিতে ভিড় করেন।
শিরিন সুলতানা দীর্ঘদিন ধরে সঙ্গীতজগতে বিচরণ করেছেন। যশোর ও আশপাশের এলাকায় তিনি ছিলেন সুপরিচিত শিল্পী। অসংখ্য অনুষ্ঠানে গান করে তিনি শ্রোতাদের হৃদয় জয় করেন।
স্বামী শেখ ফারুক হোসেন জানান, শিরিনের দুটি অ্যালবাম বাজারে রয়েছে। এর একটির নাম ‘বনলতা’, অন্যটি ‘বন্ধু কী খাওয়াইলি’।

আরও পড়ুন